ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর পরে যদি কেউ আপনাকে অনুরোধ পাঠায় আর আপনার সাথে তার সব পছন্দ-অপছন্দ মিলে যায় তাহলে ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে। 

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন করতে কোন ফি দিতে হয় না। রেজিস্ট্রেশন করতে শুধু একটি ভ্যালিড ই-মেইল আইডি লাগে। আর রেজিস্ট্রেশেন এর সময় আপনার  মোবাইল নাম্বারে  যাবে একটি ভেরিফিকেশন কোড, ভেরিফিকেশন কোড বসিয়ে সঠিক তথ্য দিয়ে প্রোফাইল কমপ্লিট করলেই হতে পারে বিয়ে একদম ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে।   

এরকম অনেক হচ্ছে, কোন ফি ছাড়াই বিয়ে করছেন অনেকে।

আজ আমরা এরকম একজনের গল্প বলবোঃ 

সাতক্ষীরার মেয়ে রিমু, সে অনার্স থার্ড ইয়ারে পড়ছে। বিয়ে করা দরকার আর তাই বিয়েটা’তে রেজিস্ট্রেশন করলেন। সে সুন্দরী, লম্বা। রেজিস্ট্রেশন করার কয়েকদিনের মধ্যে বিভিন্ন জায়াগা থেকে অনুরোধ আসা শুরু হয়। কয়েকজনের সাথে কথা বলাও শুরু হয়। আর এই কথা বলার জন্য প্রথমে যাকে পছন্দ হয়েছে তার পুরো বায়ো-ডাটা দেখার অনুরোধ গ্রহণ করতে হয়, এরপরে আবার ঐ পাত্র এর পক্ষ থেকে যোগাযোগের অনুরোধ আসে। যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ করলে একে অপরের ফোন নাম্বার, ঠিকানা পাওয়া যায়। ফ্রি ইউজার হিসাবে থাকলেও যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ করা যায়। অর্থাৎ ফ্রি ইউজার হয়েও কথা বলা, এসএমএস পাঠানোর সুযোগ রয়েছে বিয়েটা ডট কমে।

 

 

সবশেষে রিমু নরসিংদির  এক ছেলের যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ করে। সেই ছেলে একজন সফটওয়ার ইঞ্জিনার। ছেলেটি ঢাকায় থাকে। নাম ইমরান ফাহাদ। প্রাইভেট ফার্মে জব করে। সে একজন সুন্দরী ও লম্বা মেয়ে খুঁজছিল। 

ইমরান ফাহাদের সাথে রিমুর প্রায় ২ মাস বিভিন্ন বিষয়ে কথাবার্তা হয়। অবশেষে তারা ঢাকায় রিমুর এক আত্বীয় এর বাসায় দেখা করে। রিমুকে প্রথম দেখাতেই ইমরান ফাহাদের পছন্দ হয়। তারপরে রিমু নিজে তার এক বোনের সাথে ইমরানের অফিসে দেখা করে। এভাবে কিছুদিন থাকার পরে রিমু গ্রামের বাড়ি ফিরে যায়। আর এর কয়েকদিন পরে একে-অপরের আত্বীয় স্বজনের উপস্থিতিতে বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। ইমরান ফাহাদ বিয়েটা ডট কম থেকে দুইটি প্ল্যান কিনেই সফল হয়েছিলেন। আর রিমু কোন প্ল্যান না কিনেই অর্থাৎ ফ্রিতেই বিয়েটা ডট কম থেকে পেয়ে গেলেন মনের মত পাত্র।আপনারও  ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে। 

 

আসলে বিয়েটা ডট কম থেকে প্রতিদিন এইরকম বিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে যার সব খবর আমাদের কাছে নেই। ২০১৫ এর ডিসেম্বার থেকে আজ ১১ই সেপ্টেম্বর-২০২১ পর্যন্ত বিয়েটা ডট কমে ৮৪,১৩৯ জন গ্রাহক একাউন্ট খুলেছে। আর এখন  বিয়েটাতে ২৫,৫২৯টি প্রোফাইল সচল রয়েছে। তাই আপনি আস্থা রাখতে পারেন বিয়েটা ডট কমের উপর।প্রয়োজন শুধু সঠিক তথ্য দেওয়া আর কিছু সময় দেওয়া। প্রতিদিন প্রোফাইলে  সময় দিলে আপনার প্রোফাইলটি বিয়েটা ডট কমের সাইটের প্রথম পেজে বা প্রথম দিকে থাকবে। যার ফলে সবাই দেখতে পারবে। আর কারো যদি পছন্দ হয় তাহলে আপনাকে অনুরোধ পাঠাতে পারেন। আর আপনি সহজেই পেয়ে যেতে পারেন নিজের পছন্দমত মনের মানুষকে। 

বিয়েটা‘তে বিয়ের আগে বা পরে প্ল্যান আপগ্রেড করা ব্যতিত কোন পেমেন্ট করতে হয় না। অর্থাৎ বিয়ের পরে বিয়েটা ডট কমে কোন পেমেন্ট বা উপহার দিতে হয় না। বরং বিয়েটা ডট কম থেকেই বিবাহিতদেরকে উপহার দেওয়া হয়েছে। তাই বিয়ের পরে অবশ্যই ফিডব্যাকে উল্লেখ করবেন যে বিয়েটা’র মাধ্যমে বিয়ে হয়েছে। এতটুক কৃতজ্ঞতা বিয়েটা ডট কম আশা করতেই পারে। আশা করি ফিডব্যাকে উল্লেখ করবেন বিয়ের খবর। 

শেয়ার করুন

5 thoughts on “ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে

      1. আমার একজন শিক্ষিত ভদ্র নম্র সুন্দরী পাত্রী দরকার, যে নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়বে পর্দা করবে, শিক্ষাগত যোগ্যতা কমপক্ষে ইন্টারমিডিয়েট পাশ আর বয়স ১৮ থেকে ২১ মধ্যে হতে হবে, যদি ভালো পাত্রী পাওয়া যায় তাহলে এসএসসি হলেও চলব, পরিবার শিক্ষিত হতে হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.