খুঁজুন। বিয়ে করুন। ভালবাসুন। আজীবন।

Landing page down arrow

কিভাবে আপনি জীবনসঙ্গী খুঁজবেন?

  • tick markরেজিস্টার করুন নিজের বা পরিচিতজনের জন্য
  • tick markআপনার সকল তথ্য দিন
  • tick markসবগুলো ঘর ভালোভাবে পূরণ করুন
  • tick markকার্ড বা বিকাশে পে করুন
  • tick markপাত্র/পাত্রী খুঁজুন
  • tick markসম্পূর্ণ বায়োডাটা দেখার অনুরোধ করুন
  • tick markযোগাযোগের অনুরোধ করুন
  • tick markমেসেজ পাঠান
  • tick markদেখা করুন এবং বিয়ের সিদ্ধান্ত নিন

আমাদের সেবাসমূহ

Our-Services-icon-1-logo

সপ্তাহে ৭ দিন গ্রাহক সেবা

আমরা সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৬ টা পর্যন্ত গ্রাহক সেবা দিয়ে থাকি। আমাদের সাথে আপনারা ইমেইল, ফোন অথবা ফেসবুক মেসেঞ্জারের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা চেষ্টা করি সকল সমস্যার সহজ এবং দ্রুত সমাধান করতে।

Our-Services-icon-2-logo

বিশেষ পরামর্শ

আমরা গ্রাহকদের আরও সুন্দরভাবে কিভাবে প্রোফাইলটি উপস্থাপন করতে পারে সে ব্যাপারে পরামর্শ দিয়ে থাকি। প্রিমিয়াম গ্রাহকদের চাহিদা সাপেক্ষে তাদের পছন্দের পাত্র বা পাত্রী খুঁজতে সাহায্য করে থাকি।

Our-Services-icon-3-logo

ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে সহযোগীতা

আমাদের ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে গ্রাহক আমাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবেন। যেকোনো ধরণের সমস্যা অথবা যেকোনো ধরনের প্রশ্নের উত্তর আমরা দিয়ে থাকি। এছাড়াও আমরা ফেসবুক পেইজে কিছু পাত্র বা পাত্রীর নিজের সম্পর্কে কিছু কথা পোস্ট করে থাকি।

Our-Services-icon-4-logo

গোপনীয়তা ও বিশ্বস্ততার নিশ্চয়তা

আপনার অনুমতি ছাড়া ছবি, আসল নাম ও পূর্ণ প্রোফাইল কেউ দেখতে পারবে না। দুই ধাপে অনুমতি দেয়ার পরে গ্রাহক আপনার যোগাযোগের তথ্য পাবে। আমরা প্রত্যেকের মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করি। আপনার অভিযোগ বা সন্দেহজনক তথ্য পেলে নিয়ম অনুযায়ী পদক্ষেপ নেই।

আপনার প্ল্যান নির্বাচন করুন

সুবিধাসমূহ

মেয়াদ
প্রযোজ্য নয়
শর্ট প্রোফাইল দেখুন
Tick icon
বায়োডাটার অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ প্রেরণ
Cross icon
বায়োডাটার অনুরোধ প্রেরণ
Cross icon
বায়োডাটা ডাউনলোড
Cross icon
সংবাদপত্রের বিজ্ঞাপন
Cross icon
বিশেষজ্ঞ সেবা (চাহিদা সাপেক্ষে)
Cross icon
সুপারিশ (চাহিদা সাপেক্ষে)
Cross icon

সুবিধাসমূহ

মেয়াদ
১ মাস
শর্ট প্রোফাইল দেখুন
Tick icon
বায়োডাটার অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ প্রেরণ
বায়োডাটার অনুরোধ প্রেরণ
ইচ্ছেমতো
বায়োডাটা ডাউনলোড
Tick icon
সংবাদপত্রের বিজ্ঞাপন
Tick icon
বিশেষজ্ঞ সেবা (চাহিদা সাপেক্ষে)
Tick icon
সুপারিশ (চাহিদা সাপেক্ষে)
Cross icon

সুবিধাসমূহ

মেয়াদ
৩ মাস
শর্ট প্রোফাইল দেখুন
Tick icon
বায়োডাটার অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ প্রেরণ
২৫
বায়োডাটার অনুরোধ প্রেরণ
ইচ্ছেমতো
বায়োডাটা ডাউনলোড
Tick icon
সংবাদপত্রের বিজ্ঞাপন
Tick icon
বিশেষজ্ঞ সেবা (চাহিদা সাপেক্ষে)
Tick icon
সুপারিশ (চাহিদা সাপেক্ষে)
Tick icon

সুবিধাসমূহ

মেয়াদ
৬ মাস
শর্ট প্রোফাইল দেখুন
Tick icon
বায়োডাটার অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ
Tick icon
যোগাযোগের অনুরোধ প্রেরণ
৬০
বায়োডাটার অনুরোধ প্রেরণ
ইচ্ছেমতো
বায়োডাটা ডাউনলোড
Tick icon
সংবাদপত্রের বিজ্ঞাপন
Tick icon
বিশেষজ্ঞ সেবা (চাহিদা সাপেক্ষে)
Tick icon
সুপারিশ (চাহিদা সাপেক্ষে)
Tick icon

ব্লগ

বিয়েটা-তে শুভ আর মণির বিয়ের গল্প

blog-image-1
আমি শুভ , একটা বেসরকারি টেক্সটাইল কোম্পানিতে সিনিয়র এক্সিকিউটিভ হিসেবে কর্মরত আছি। আমার পরিবার থেকে অনেক দিন থেকেই আমাকে বিয়ে দিতে চাইছিল। কিন্তু কি করবো বুঝতে পারছিলাম না। বিয়ের পাত্রী খুঁজতে হবে, কিন্তু কিভাবে? এক বন্ধু জানালো, “আমাদের দেশে এখন খুব ভাল একটা বিয়ের সাইট আছে তুই চাইলে সেখানে একটা প্রোফাইল তৈরি করতে পারিস। সেখান থেকে তুই তোর পছন্দ মত কাউকে খুঁজে নিতে পারবি। আমি নিজেও এই সাইটের একজন ইউজার।” বন্ধুর কথা মত বিয়েটা‘তে আমার একটা অ্যাকাউন্ট ওপেন করে ফেললাম। অনেক প্রোফাইল দেখলাম। বিয়েটার সকল সিস্টেম বুঝে নিলাম। খুঁজতে খুঁজতে মণি নামের প্রোফাইলটা চোখে পড়লো। রিকোয়েস্ট পাঠালাম। এখন অপেক্ষা কখন সে আমার রিকোয়েস্ট  গ্রহন করবে? আমার প্রোফাইল কি তার ভালো লাগবে? আমি মণি, এখনও পড়াশুনা করছি। আমার একজন কাজিনের বিয়ে নিয়ে আমার পরিবারের সবাই চিন্তিত। কাজিন বিয়েটা-তে একটা প্রোফাইলও ওপেন করেছিলো। কিন্তু তার প্রোফাইলটি একটিভ হয়েছে কিনা সেটা জানার জন্যই কৌতূহল বশতঃ  আমি নিজের একটা প্রোফাইল ওপেন করেছিলাম। প্রোফাইল ওপেন করতেই রেসপন্স পাওয়া শুরু করলাম। তখনই শুভ’র রিকোয়েস্ট দেখতে পাই আর তার প্রোফাইল চেক করে পছন্দও হয়ে যায়। কৌতূহল যেন এখন মনের সর্বাত্মক চাওয়াতে পরিণত হতে শুরু করল। একদিন কথা হল ফোনে দু’জনের। কথা বলে ভাল লাগা যেন আরও বেড়ে চলেছে। এর পর দেখা। দেখা করে আরও আবেগ আর ভালোলাগার সৃষ্টি হলো দুজনের মাঝেই। কিছুদিন নিজেদের মধ্যে চেনা জানা হল। এর পর দুজনেই সিদ্ধান্ত নিলাম পরিবারকে জানাবো। সেটাই করলাম। আল্লাহ্‌র রহমতে, কোনো ঝামেলা ছাড়াই জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু হয়ে গেলো। এখন আমরা খুব সুখী দম্পতি। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। বাংলাদেশে এমন একটি সাইট তৈরি হয়েছে তাই আমরা অনেক খুশি।

সোনিয়া এবং জাহিদের ‘’বিয়েটার’’ মাধ্যমে নতুন পথ চলা

blog-image-2
সোনিয়া  ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ করছেন । পরিবার থেকে তাকে বিয়ে দেওয়ার জন্য পাত্র দেখা হচ্ছিলো। কিন্তু সে যেমন চাইছে তেমন কাউকে পাচ্ছিলেন না। একদিন সোনিয়া ফেসবুক এ দেখতে পেলো আমাদের বিয়েটা.কম এর বিজ্ঞাপন। তার পর বিয়েটা.কম এর হেল্পলাইন এ কল করে বিস্তারিত জেনে সেখানে রেজিস্টার করেন।  সেখান থেকেই  তার পছন্দ অনুযায়ী অনেক ছেলেদের প্রোফাইল দেখতে পেল। খুঁজে পেল তার নতুন করে পথ চলার সঙ্গীকে। জাহিদ একজন সরকারি কর্মকর্তা। মনের মত জীবনসঙ্গিনী খুঁজে নিতে তিনি আমাদের সাইটে তার একটা প্রোফাইল তৈরি করেছিলেন ১৫ই জানুয়ারী ২০১৬ তে। বিয়েটার মাধ্যমে তাদের যোগাযোগ হয়। দুই পরিবারের সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে এবং পারস্পরিক পরিচিতির মধ্য দিয়ে তারা বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হন। এখন তারা খুব সুখী একটা পরিবার গড়েছেন। আমরা তাদের সুখী দাম্পত্য জীবন কামনা করি। সোনিয়া ও জাহিদ আমাদের সাথে যোগাযোগ করেছেন। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন বিয়েটা.কম সাইটকে। সোনিয়ার মন্তব্য অনুযায়ী, ‘’আজ এই সাইটটির মাধ্যমেই আমি আমার জীবনে জাহিদকে পেয়েছি।  আর তাই আমি বিয়েটা.কম এর প্রতি কৃতজ্ঞ’’। আমরা (বিয়েটা কম) আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানাই যে, তিনি আমাদের সাহায্য করেছেন এমন মহৎ কাজে শরিক হওয়ার। আমরা যেন এইভাবেই আরো অনেক বিবাহ উপযোগী নারী ও পুরুষকে তাদের জন্য  সঙ্গী/সঙ্গিনী খুঁজে নিতে সাহায্য করতে পারি। সবাই দোয়া করবেন সোনিয়া এবং জাহিদের জন্য এবং আমাদের বিয়েটা.কম এর জন্য।   পাত্রীর অনুরোধে আসল নাম গোপন করা হয়েছে।