FAQ

বিয়েটাতে রেজিস্ট্রেশন করতে আমাদের ওয়েবসাইট www.biyeta.com এ গিয়ে ইমেইল আইডি এবং ন্যূনতম ৪ টি ডিজিট এর পাসওয়ার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর নিজ তথ্যগুলো এবং পছন্দের তথ্যগুলো পূরণ করে খুঁজে নিন নিজের মনের মত পাত্র/পাত্রী।

নিচের ভিডিওতে বিয়েটা-তে রেজিস্ট্রেশন এর ধাপগুলো দেখুনঃ
বিয়েটা ব্যবহার খুব সহজ। প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করে নিজের প্রোফাইল তৈরি করুন। বিয়েটা আপনার পছন্দের উপর ভিত্তি করে পাত্র বা পাত্রীর ম্যাচ দেখাবে। আপনি একটি প্রিমিয়াম প্ল্যান নির্বাচন করার পর, কাউকে পছন্দ হলে তাকে পুরো বায়োডাটা দেখার জন্য তাকে অনুরোধ পাঠাবেন। এ সময় আপনি তার যোগাযোগের ঠিকানা ও ফোন নম্বর ছাড়া সব তথ্য দেখতে পাবেন। পুরো বায়োডাটার অনুরোধ গ্রহণ করলে পরবর্তীতে আপনি তাকে যোগাযোগের অনুরোধ পাঠাতে পারবেন এবং অনুরোধটি গৃহীত হলে তার সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।
আপনি ছাড়া আপনার বাবা, মা, ভাই ও বোন বিয়েটাতে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।
বিয়েটাতে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ ফ্রী। যোগাযোগের অনুরোধ এবং বায়োডাটার অনুরোধ পাঠাতে আপনাকে প্রিমিয়াম মেম্বার হতে হবে। আমাদের ৩টি প্রিমিয়াম প্ল্যান আছেঃ সিলভার (১০০০ টাকা), গোল্ড (২৫০০ টাকা) এবং প্লাটিনাম (৫০০০ টাকা)।
“শুধু মাত্র অন্যান্য পারিবারিক পরিচয়” ছাড়া অন্য অংশগুলো শুরুতেই পূরণ করা বাধ্যতামূলক। আপনার সাথে ম্যাচ করানোর জন্য এই তথ্যগুলো প্রয়োজন।
না। আপনি যেখানে চাওয়া হয় শুধুমাত্র সেখানেই মোবাইল নাম্বার, ইমেইল এড্রেস ও ফেইসবুক আইডি ব্যবহার করতে পারবেন। অন্য কোথাও উল্লেখ করলে আপনার অ্যাকাউন্ট ব্যান হতে পারে।
আপনার ব্যাপারে বিশ্বস্ততা বৃদ্ধির জন্য ভেরিফিকেশন করতে উৎসাহিত করা হচ্ছে।
আপনি আপনার পছন্দ যেকোন সময় পরিবর্তন করতে পারেন। সে অনুযায়ী আপনার ম্যাচ দেখানো হবে।
বিয়েটাতে রয়েছে ২০০০০ এর অধিক পূর্ণ পাত্র/ পাত্রীর প্রোফাইল। বিয়েটাতে অ্যাকাউন্ট খোলা মাত্রই আপনি পাচ্ছেন আপনার পছন্দ অনুসারে পাত্র/পাত্রীর শর্ট-প্রোফাইল। যে কোন প্ল্যান (সিলভার, গোল্ড, প্লাটিনাম) নির্বাচন করে আপনার পছন্দ অনুসারে বায়োডাটা দেখার অনুরোধ পাঠিয়ে দেখে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের পাত্র/পাত্রীর সম্পূর্ণ প্রোফাইলটি। যোগাযোগের অনুরোধ পাঠানোর মাধ্যমে তাদের সাথে যোগাযোগ করে খুঁজে নিতে পারেন আপনার জীবনসঙ্গী।
বিয়েটাতে গোপনীয়তা রক্ষা অত্যন্ত সহজ। বিয়েটাতে আপনার সম্পূর্ণ প্রোফাইল আপনার অনুমতি ছাড়া কেউ দেখতে পারবে না। আপনার ছবি দেখার ক্ষেত্রেও প্রাইভেসি দিয়ে রাখতে পারবেন। আপনি অনুরোধ গ্রহণ না করা পর্যন্ত কেউ আপনার বায়োডাটা/যোগাযোগের তথ্য পাবে না।
আমাদের ইউজারদের অনেকের মনে এমন প্রশ্ন রয়ে গেছে, কিভাবে পছন্দের পাত্র অথবা পাত্রীর সাথে যোগাযোগ করা যাবে। আর তাই সকলের সুবিধার জন্য যোগাযোগের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া জানানো হল-

সবার প্রথমে আপনাকে বিয়েটাতে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর আপনাকে আমাদের ৩টি প্রিমিয়াম প্ল্যানের মধ্যে যেকোনো একটি প্ল্যান নিতে হবে। প্রিমিয়াম মেম্বার না হলে আপনি কাউকে বায়োডাটা অথবা যোগাযোগের অনুরোধ পাঠাতে পারবেন না।

যদি কোন পাত্র অথবা পাত্রীর শর্ট প্রোফাইল আপনার পছন্দ হয় সেক্ষেত্রে আপনি তাকে পুরো বায়োডাটা দেখার অনুরোধ পাঠাতে পারবেন।

পাত্র অথবা পাত্রী যদি আপনার পাঠানো অনুরোধ গ্রহণ করে এবং তার পুরো বায়োডাটা দেখে আপনার পছন্দ হয়, তখন আপনি তাকে যোগাযোগের অনুরোধ পাঠাতে পারবেন।
বায়োডাটার অনুরোধ এবং যোগাযোগের অনুরোধ পাঠানোর ধাপগুলো হল-

প্রিমিয়াম প্ল্যান নির্বাচন করতে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্ট এ টাকা লোড করতে হবে। ক্রেডিট কার্ড (ভিসা, মাস্টারকার্ড), এবং বিকাশের মাধ্যমে আপনি আপনার বিয়েটা অ্যাকাউন্ট-এ টাকা লোড করতে পারবেন।
biyeta.com এ লগইন করে “প্রোফাইল” পেইজ এ গিয়ে আপনার প্রোফাইলে প্রদত্ত তথ্য এডিট করতে পারবেন। এছাড়া বিয়েটা অ্যাপ 2.4 ভার্সন এবং এর পরের সব ভার্সন থেকেও আপনি প্রোফাইলে গিয়ে আপনার প্রোফাইল এডিট করতে পারবেন।
আপনার পছন্দ পরিবর্তন করতে হলে আমাদের ওয়েবসাইট www.biyeta.com এ লগ ইন করতে হবে, আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ থেকে পরিবর্তন করতে পারছেন না। ওয়েবসাইটে আপনি যেকোনো পিসি অথবা মোবাইলের ব্রাউজার থেকেও যেতে পারবেন। লগ ইন করার পর “আপনার পছন্দ” অপশনে ক্লিক করলে আপনি আপনার প্রদত্ত তথ্য দেখতে পারবেন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করতে পারবেন।
বিয়েটার ওয়েবসাইটে গেলে আপনি একটি “মিল” অপশন দেখতে পারবেন। এই অপশনটির কাজ হচ্ছে প্রতি ২৪ ঘণ্টায় আপনার পছন্দ এবং পারস্পরিক পছন্দ মিলে গিয়েছে এরকম ২০টি প্রোফাইল দেখানো হয়। এই পেইজের সুবিধা হল আপনার নিজে থেকে সার্চ করে পছন্দের পাত্র/পাত্রী খুঁজতে হচ্ছে না। সহজেই এই পেইজের মাধ্যমে আপনার পছন্দের পাত্র/পাত্রী পেয়ে যাচ্ছেন।
১। আপনি যদি নির্ধারিত স্থান ছাড়া প্রোফাইল এর অন্য কোথাও কোন যোগাযোগের তথ্য (যেমন ফেসবুক আইডি, ইমেইল, ফোন নাম্বার ইত্যাদি) দিয়ে থাকেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।

২। আপনার বয়স ২১ এর নিচে (ছেলে) অথবা ১৮ এর নিচে (মেয়ে) হলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।

৩। আপনার অ্যাকাউন্ট দেখে যদি মনে হয় আপনি বর্তমানে বিয়ের ব্যাপারে আগ্রহী নন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হতে পারে।

৪। বিয়েটা-তে আপনার একাধিক অ্যাকাউন্ট থাকলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হতে পারে।

৫। আপনার সাথে ফোন এ কথা বলে যদি মনে হয় আপনি ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা বা ভুল তথ্য দিয়েছেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।

৬। যদি কোনো ইউজার নিজের থেকে আইডি ব্যবহার করতে না চায় তাহলে বিয়েটা থেকে আইডি বন্ধ করে দেয়া হবে।
biyeta.com এ গিয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট এ লগইন করুন। তারপর অ্যাকাউন্ট সেটিংস এ গিয়ে “অ্যাকাউন্ট বন্ধ করুন” অপশনে ক্লিক করুন। নিচে “নিশ্চিত করুন” একটি অপশন আসবে সেখানে ক্লিক করলে আপনার অ্যাকাউন্ট ডিঅ্যাকটিভেট হয়ে যাবে।
বিয়েটা গ্রাহক কর্তৃক প্রদানকৃত ভুল এবং/অথবা বিভ্রান্তিকর তথ্যের জন্য দায়ী নয়। বিয়েটা সম্পূর্ণ অনলাইন ভিত্তিক। বর্তমানে পাত্র এবং পাত্রীর সরাসরি দেখা করার কোন ব্যবস্থা বিয়েটা করে না।
অন্য যেকোন জিজ্ঞাসার জন্য যোগাযোগ করুন।
কাজ করছে। অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন