বিয়েটা-র গল্প

বিয়েটাতে অনুমতি ছাড়া নাম্বার পাওয়া যায় না

বিয়েটাতে অনুমতি ছাড়া নাম্বার পাওয়া যায় না

বিয়েটা’তে অনুমতি ছাড়া পাত্র-পাত্রীদের নাম্বার পাওয়া যায়না, অপেক্ষা করতে হয়। অথচ অন্য একটা ওয়েবসাইটে আছে যেখানে ১০০ টাকা দিলেই একজন পাত্র-পাত্রীর নাম্বার পাওয়া যায়। এরকম একটি মন্তব্য করেছেন বিয়েটার একজন গ্রাহক। -হ্যাঁ, আমাদের ওয়েবসাইটে টাকা দিলেই বা প্ল্যান আপগ্রেড করলেই নাম্বার পাওয়া যায়না, পাত্র-পাত্রীর অনুমতি লাগে।   আপনি চিন্তা করুন ১০০ টাকা দিয়ে একজন পাত্র-পাত্রীর নাম্বারRead more about বিয়েটাতে অনুমতি ছাড়া নাম্বার পাওয়া যায় না[…]

Share on
বিয়েটা হেল্পলাইন

বিয়েটা হেল্পলাইন

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর পরে সাধারণত নিজেই নিজের পছন্দের মানুষকে প্ল্যান আপগ্রেড করে অনুরোধ পাঠাতে হয়। আর অপর পক্ষ যখন নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রোফাইল দেখে প্রথম অনুরোধটি অর্থাৎ বায়ো-ডাটা দেখার অনুরোধ গ্রহণ করে তখন যোগাযোগের অনুরোধ পাঠাতে হয়। আর যোগাযোগের অনুরোধ পাঠানোর পরে ৭ দিনের মধ্যে অপর পক্ষ যদি অনুরোধটি গ্রহণ করে তাহলে ফোনRead more about বিয়েটা হেল্পলাইন[…]

Share on
ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে

ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর পরে যদি কেউ আপনাকে অনুরোধ পাঠায় আর আপনার সাথে তার সব পছন্দ-অপছন্দ মিলে যায় তাহলে হতে পারে বিয়ে ফ্রিতেই।   বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন করতে কোন ফি দিতে হয়না। রেজিস্ট্রেশন করতে শুধু একটি ভ্যালিড ই-মেইল আইডি লাগে। আর রেজিস্ট্রেশেন এর সময় আপনার  মোবাইল নাম্বারে  যাবে একটি ভেরিফিকেশন কোড, ভেরিফিকেশন কোডRead more about ফ্রিতেই হতে পারে বিয়ে[…]

Share on
ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিয়ে!

ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিয়ে!

আমাদের দেশে ইন্টারনেটের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। ইন্টারনেটের ব্যবহার কয়েক বছর আগেও এত ব্যাপক ছিল না। নির্দিষ্ট কিছু ব্যক্তি বা কিছু প্রতিষ্ঠান ইন্টারনেট ব্যবহার করতো। কিন্তু বর্তমানে ২০১৮ সালের শেষ দিকে এসে এখন কিন্তু আর নির্দিষ্ট কোন ব্যক্তি বা নির্দিষ্ট কোন প্রতিষ্ঠান নয় বরং সারা বাংলাদেশের প্রায় সকল মানুষের কাছে সবচেয়ে আলোচিত বিষয়টি হল- ইন্টারনেট।Read more about ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিয়ে![…]

Share on
কেন পাত্র/পাত্রী খুঁজতে বিয়েটা ডট কম ব্যবহার করবেন?

কেন পাত্র/পাত্রী খুঁজতে বিয়েটা ডট কম ব্যবহার করবেন?

আমরা প্রায় সকল কাজেই ইন্টারনেট এর উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছি। ইন্টারনেট আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অনেক কাজকে সহজে, স্বল্প মূল্যে ও দ্রুত গতিতে করে দিচ্ছে। বিয়ের জন্য লাইফ পার্টনার খোঁজ করার ব্যাপারটিও ইন্টারনেট আমাদের জন্যে অনেক সহজ করে দিয়েছে। ইন্টারনেটে বিশ্বস্ত কোন ম্যারেজ সাইটে রেজিস্ট্রেশন করে খুব সহজেই ঘরে বসেই পছন্দসই অনেক পাত্র/পাত্রীর বায়োডাটা দেখা যায়।Read more about কেন পাত্র/পাত্রী খুঁজতে বিয়েটা ডট কম ব্যবহার করবেন?[…]

Share on
কিভাবে বিয়েটা-তে রেজিস্ট্রেশন করবেন?

কিভাবে বিয়েটা-তে রেজিস্ট্রেশন করবেন?

বিয়েটা (www.biyeta.com) একটি বিবাহ-ইচ্ছুক পাত্র-পাত্রীদের জন্য একটি বিশ্বস্ত অনলাইন নেটওয়ার্ক। আপনার ইমেইল ও মোবাইল ফোন নম্বর ব্যবহার করে কিছুক্ষণের মধ্যেই এখানে একাউন্ট খুলতে পারবেন। তারপরে ধাপে ধাপে আপনার পছন্দের পাত্র বা পাত্রী সম্পর্কে ও তারপর আপনার সম্পর্কে তথ্য দিতে হবে।  

Share on
বিয়েটা ইউজার কিভাবে যোগাযোগ করবেন পাত্র অথবা পাত্রী পক্ষের সাথে

বিয়েটা ইউজার কিভাবে যোগাযোগ করবেন পাত্র অথবা পাত্রী পক্ষের সাথে

আমাদের ইউজারদের অনেকের মনে এমন প্রশ্ন রয়ে গেছে , কিভাবে পছন্দের পাত্র অথবা পাত্রীর সাথে যোগাযোগ করা যাবে। আর তাই সকলের সুবিধার জন্য যোগাযোগের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া জানানো হল- যদি কোন পাত্র অথবা পাত্রীর বায়োডাটা  আপনার পছন্দ হয় সেক্ষেত্রে আপনি তাকে বায়োডাটা   দেখার অনুরোধ পাঠাতে পারবেন। সেই পাত্র অথবা পাত্রী যদি আপনার অনুরোধ  গ্রহণ করে এবংRead more about বিয়েটা ইউজার কিভাবে যোগাযোগ করবেন পাত্র অথবা পাত্রী পক্ষের সাথে[…]

Share on
আধুনিক বিয়েতে “বিয়েটা”

আধুনিক বিয়েতে “বিয়েটা”

কয়েক বছর আগেও বাংলাদেশে অধিকাংশ বিয়ে হত পারিবারিক পছন্দের ভিত্তিতে। এলাকা ভিত্তিক ঘটক থাকত, যারা তাদের এলাকার প্রায় সব বিবাহযোগ্য ছেলে-মেয়েদের খবর রাখতেন। নিজ উদ্যোগে চলে যেতেন পাত্র-পাত্রীর বাসায়। বিয়ে না দেয়া পর্যন্ত যেন তারা ক্ষান্ত হতেন না। এসময়ে বিয়ে বা পাত্র-পাত্রী খোঁজার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখতেন পাত্র-পাত্রীর আত্মীয়স্বজনেরাও। পরিচিতদের মধ্যে বিবাহযোগ্য ছেলে-মেয়ে দেখলে, তারাও যেন হয়ে উঠতেন শৌখিন ঘটক।

আধুনিক বিয়েতে বিয়েটার ভূমিকাকিন্ত সেদিন আর নেই। সময়ের সাথে সাথে মানুষের ব্যস্ততা বেড়েছে। এখন প্রফেশনাল ঘটক আর নাই বললেই চলে। আর শৌখিন ঘটক? – সময় নেই কারও। এখন আর আগের মত প্রতিবেশীর সাথে কথা হয় না কারও। সবাই ব্যস্ত তাদের ক্যারিয়ার নিয়ে, নিজেদের পরিবার নিয়ে। আর তাই এখন বিয়ের ধরনটাও বদলে গেছে অনেকটাই। এখন অনেক ক্ষেত্রেই ছেলে-মেয়েরা নিজেরাই খুঁজে নেয়, নিজেদের জীবনসঙ্গী। কেউ জীবনসঙ্গী খুঁজে নেয় সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আর কেউ বা খুঁজে নেয় ভার্সিটির কোন ক্লাসমেট বা অফিসের কলিগদের মধ্য থেকে। খুব অল্পদিনের জানাশোনা, অল্প একটু ভালোলাগা থেকেই বিয়ে হয়ে যায় এসবক্ষেত্রে। Read more about আধুনিক বিয়েতে “বিয়েটা”

Share on