বিয়েটাতে অনুমতি ছাড়া নাম্বার পাওয়া যায় না

বিয়েটা’তে অনুমতি ছাড়া পাত্র-পাত্রীদের নাম্বার পাওয়া যায়না, অপেক্ষা করতে হয়। অথচ অন্য একটা ওয়েবসাইটে আছে যেখানে ১০০ টাকা দিলেই একজন পাত্র-পাত্রীর নাম্বার পাওয়া যায়। এরকম একটি মন্তব্য করেছেন বিয়েটার একজন গ্রাহক।

-হ্যাঁ, আমাদের ওয়েবসাইটে টাকা দিলেই বা প্ল্যান আপগ্রেড করলেই নাম্বার পাওয়া যায়না, পাত্র-পাত্রীর অনুমতি লাগে।  

আপনি চিন্তা করুন ১০০ টাকা দিয়ে একজন পাত্র-পাত্রীর নাম্বার পেলেন অথচ ঐ পাত্র-পাত্রী আপনার সম্পর্কে কিছুই জানেনা। আপনি কি মনে করেন আপনার নাম্বার থেকে কল পেলেই ঐ পাত্র-পাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যে আপনার সাথে কথা বলবে? 

আমাদের ওয়েবসাইটে পাত্র-পাত্রীর কাছে প্রথমে বায়োডাটা দেখার জন্য একটি অনুরোধ পাঠাতে হয়। মনে করুন আপনি পাত্র। কোন পাত্রীর সংক্ষিপ্ত প্রোফাইল আপনার পছন্দ হল। আপনি প্ল্যান আপগ্রেড করে ঐ পাত্রীর সম্পূর্ণ প্রোফাইল দেখার জন্য অনুরোধ পাঠালেন। এরপরে পাত্রী পক্ষ আপনার প্রোফাইল দেখে পছন্দ হলে অনুরোধ গ্রহণ করবেন এবং আপনাকে সম্পূর্ণ বায়ো-ডাটা দেখার অনুমতি দিবেন।  তখন আপনি তাঁর বিস্তারিত দেখতে পারবেন এবং যোগাযোগের জন্য অনুরোধ পাঠাতে পারবেন।  এই অনুরোধ পাঠানোর পরে ৭ দিনের মধ্যে পাত্রী পক্ষ যোগাযোগের অনুরোধ গ্রহণ করলে আপনি তাদের ফোন নাম্বার, ঠিকানা, মেইল করার সুযোগ ইত্যাদি পাবেন। 

বিয়েটাতে অনুমতি ছাড়া নাম্বার পাওয়া যায় না। পরস্পরের এই ফোন নাম্বার এবং ঠিকানা পাওয়ার আগেই একে অপরের বায়ো-ডাটা সম্পর্কে জেনে নেওয়ার এই সিস্টেম আপনার কাছে কি রকম মনে হয় জানাবেন।

Share on

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.