বিয়েটা-র গল্প

বিয়েটা হেল্পলাইন

বিয়েটা হেল্পলাইন

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর পরে সাধারণত নিজেই নিজের পছন্দের মানুষকে প্ল্যান আপগ্রেড করে অনুরোধ পাঠাতে হয়। আর অপর পক্ষ যখন নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রোফাইল দেখে প্রথম অনুরোধটি অর্থাৎ বায়ো-ডাটা দেখার অনুরোধ গ্রহণ করে তখন যোগাযোগের অনুরোধ পাঠাতে হয়। আর যোগাযোগের অনুরোধ পাঠানোর পরে ৭ দিনের মধ্যে অপর পক্ষ যদি অনুরোধটি গ্রহণ করে তাহলে ফোনRead more about বিয়েটা হেল্পলাইন[…]

Share on
বিয়েটাকে ব্যবহার করে বিয়ে এবং কিছু পরামর্শ

বিয়েটাকে ব্যবহার করে বিয়ে এবং কিছু পরামর্শ

বিয়েটা ডট কমে অনেক আগ্রহ নিয়ে রেজিস্ট্রেশন করার পর মনমত কোন রেস্পন্স না পেয়ে অনেকেই আর প্রোফাইলে লগইন করেন না। আর নিজে নিজে মন্তব্য করেন যে, খুঁজে পেলাম না আমার পছন্দমত কোন পাত্র বা পাত্রীকে। অথচ বন্ধু বা বান্ধবীদের কাছে অনেক সুনাম শুনে তারা বিয়েটাতে রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন বা পেমেন্ট করেছিলেন কিন্তু সঠিক নির্দেশনা না পাওয়ারRead more about বিয়েটাকে ব্যবহার করে বিয়ে এবং কিছু পরামর্শ[…]

Share on
বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর আগে ও পরে

বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর আগে ও পরে

বিয়েটা ডট কমের মাধ্যমে বিয়ে করতে চাইলে রেজিস্ট্রেশন এর আগে ও পরে আমাদেরকে যেসব কাজ করতে হবে আজকে এই বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করব। রেজিস্ট্রেশন-এর সময় করণীয়ঃ প্রথম ধাপঃ  রেজিস্ট্রেশন এর জন্য ভ্যালিড ই-মেইল আইডি থাকতে হবে। না থাকলে বানাতে হবে।  দ্বিতীয় ধাপঃ রেজিস্ট্রেশন এর সময় নিজের পছন্দের কথা জানাতে হবে।  তৃতীয় ধাপঃ নিজের সম্পর্কেRead more about বিয়েটা ডট কমে রেজিস্ট্রেশন এর আগে ও পরে[…]

Share on
কিভাবে বিয়েটা-তে রেজিস্ট্রেশন করবেন?

কিভাবে বিয়েটা-তে রেজিস্ট্রেশন করবেন?

বিয়েটা (www.biyeta.com) একটি বিবাহ-ইচ্ছুক পাত্র-পাত্রীদের জন্য একটি বিশ্বস্ত অনলাইন নেটওয়ার্ক। আপনার ইমেইল ও মোবাইল ফোন নম্বর ব্যবহার করে কিছুক্ষণের মধ্যেই এখানে একাউন্ট খুলতে পারবেন। তারপরে ধাপে ধাপে আপনার পছন্দের পাত্র বা পাত্রী সম্পর্কে ও তারপর আপনার সম্পর্কে তথ্য দিতে হবে।  

Share on