সফল দম্পতিদের বৈশিষ্ট্য

প্রত্যেক দম্পতিই চায় তাঁদের বিবাহিত জীবন সুখের হোক। কিন্তু অনেকেই জানে না, কোন কাজ গুলো দাম্পত্য জীবনকে সুখ শান্তিময় করে তুলতে সাহায্য করে। তাদের জন্য আজকে বিয়েটা ব্লগে থাকছে সফল দম্পতিদের বৈশিষ্ট্য নিয়ে কিছু কথা। এই আলোচনা এক সফল বিবাহিত ব্যক্তি সম্পর্কে আমাদের ব্যক্তিগত মতামত। আশা করছি, আপনাদের উপকারে আসবে।

তুলনামুলকভাবে বেশি পরিশ্রমী হয়ঃ সফল বিবাহিত মানুষ সাধারণতঃ  অন্যের তুলনায় বেশি পরিশ্রমী হয়। পুরুষ যেমন সংসারের দায়িত্ব পালনে অর্থ উপার্জনে সচেষ্ট থাকে ঠিক তেমনি একজন বিবাহিত মহিলাও সংসারে স্বামীর সকল কাজে সহযোগিতার পাশাপাশি সংসারের বিভিন্ন প্রয়োজনে নেতৃত্ব প্রদান করে। ফলে উভয়ের মধ্যে পরিশ্রমী মনোভাব বিরাজ করে যার মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীলতার পাশাপাশি মানসিক শক্তিও অর্জিত হয়। বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে হরমোনজনিত পরিবর্তন আসে। বিশেষ করে সন্তান হওয়ার পর, ফলে তারা আগের চাইতে আরো বেশি পরিশ্রমী ও উদ্যোগী হন।

সফল দম্পতিদের বৈশিষ্ট্য | Biyeta Blog

নিয়ম শৃঙ্খলার ব্যপারে সচেতন হয়ঃ স্বামী-স্ত্রী উভয়ের সাথে মিলেমিশে চলতে হয় বলে বিবাহিত মানুষ এর মধ্যে নিজের অজান্তেই শৃঙ্খলাবোধ সৃষ্টি হয়। এই শৃঙ্খলাবোধ থেকে তাদের মানসিক শক্তি উন্নত হয়। সফল দাম্পত্যের এই শৃঙ্খলাবোধ সকলের জন্য আদর্শ। 

সাহসী হয়ঃ সফল বিবাহিত ব্যক্তি তাঁর পরিবারে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে করতে একসময় সাহসী হয়ে উঠে। সাহসিকতা সফল বিবাহিত মানুষ এর অন্যতম গুণ। সফল বিবাহিত মানুষ এর মধ্যে ভীরুতা, দুর্বলতা ইত্যাদি মানবিক দোষ কম থাকে। 

হজে নিরাশ হন নাঃ সফল বিবাহিত মানুষ যেহেতু প্রতি মুহুর্তে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে চলতে থাকেন তাই তারা সহজে নিরাশ হননা। 

পরিবর্তনে লজ্জা পান নাঃ বিবাহিত মানুষ জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে দুজনে পরামর্শ করে চলে বিধায় যেকোন পরিবর্তনে একে অপরকে সাহস দিয়ে থাকেন ফলে তারা যেকোন পরিবর্তনকে সহজে গ্রহণ করতে পারেন।

সফল বিবাহিত মানুষ সকল কাজে সচেতন থাকেনঃ তারা সকল কাজে সচেতন থাকে। নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না এমন কোন বিষয়ে তারা মনযোগ দেন না। ফলে তাদেরকে ব্যর্থতা সহজে কাবু করতে পারেনা।

সফল বিবাহিত ব্যক্তি । বিয়েটা ব্লগ

সকলকে খুশি করতে চান নাঃ বিবাহিত সফল মানুষের আবেগপ্রবণতা তুলনামুলকভাবে কম। তারা সকলকে খুশি করতে চান না। কারন সবাইকে খুশি করা প্রকৃতপক্ষে সম্ভব না, তাই তারা আবেগপ্রবণ না হয়ে যা করতে গেলে হিতে বিপরীত হবে সেকাজ থেকে বিরত থাকেন। কোন কাজ করা দরকার বা কাকে খুশি আগে করা দরকার অর্থাৎ কোন কাজ বা কাজে প্রাধান্য দেওয়া দরকার এ ব্যাপারে তাঁরা খুব সচেতন থাকেন। 

হিসেব নিকাশ করে ঝুঁকি নিতে ভয় পান নাঃ বিবাহিত মানুষ যেহেতু সকল বিষয়ে একে অপরের সাথে পরামর্শ করে চলে থাকেন তাই তারা যেকোন বিষয়ে ঝুঁকি নিতে ভয় পান না।

সফল দম্পতিদের বৈশিষ্ট্য । বিয়েটা ব্লগ

তারা অতীতে বাস করেন নাঃ সফল বিবাহিত মানুষের আরেকটি বিশেষ দিক হল তারা অতীত নিয়ে বেশি চিন্তা করেন না, অতীত নিয়ে অযথা টানা হ্যাচড়া করেন না। কারণ পিছনের দিকে বেশি তাকালে সামনের লক্ষ্য অর্জন করা কঠিন হয়ে যায়।

একই ভুল বারবার করেন নাঃ বিবাহিত সফল মানুষ একই ভুল বার বার করেন না। তারা ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে সামনে এগিয়ে যান।

অন্যদের সাফল্য দেখে ক্ষুদ্ধ হন নাঃ বিবাহিত সফল মানুষের সবচাইতে বড় গুন হল তারা অন্যের সাফল্য দেখে ক্ষুদ্ধ কিংবা বিচলিত হননা। এটা সফল মানুষের বিরাট গুন। তারা অন্যের সাফল্যের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন।

প্রথমবার ব্যর্থ হলেই হাল ছেড়ে দেন নাঃ সফল বিবাহিত মানুষের আরেকটি গুন হল যে কোন কাজে প্রথম বার ব্যর্থ হলেই হতাশ হননা, হাল ছেড়ে দেননা। বার বার চেষ্টা করেন। 

তাৎক্ষনিক ফল আশা করেন নাঃ বিবাহিত সফল মানুষের বহুগুনাবলীর মধ্যে একটি হল, তারা যেকোন পরিশ্রমের তাৎক্ষনিক ফল  পাওয়ার আশা করেননা। তারা চেষ্টা চালাতে থাকেন, ফলাফল পাওয়ার জন্য ধৈর্য্য ধারণ করেন। কোন ফল পাওয়া না গেলেও আশাহত হননা। বিবাহিত জীবনে সফলতা সম্পর্কিত আরো ব্লগ পড়ুন বিবাহিত জীবনের সুখের রহস্য

বিবাহিত সফল দম্পতিদের এছাড়াও আরো অনেক গুণ থাকে। আমাদের  নিজেদের মধ্যে এই গুণাবলীর চর্চা করা উচিৎ। স্বামী স্ত্রী একজন অন্যজনের জন্য নিয়ামত। পরস্পরের প্রতি সহমর্মিতা, সহযোগিতা এবং সম্মানবোধ একটি সংসারকে সুখী এবং সমৃদ্ধ করে তুলতে পারে। 

Share on

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.